0
নখের বিভিন্ন অংশঃ
হাত ও পায়ের আঙুলে সবারই নখ আছে। বিশেষ করে স্তন্যপায়ী বেশিরভাগ প্রাণীদের হাত-পায়ে নখ দেখা যায়। নখ আসলে আমাদের দেহের এক ধরনের মৃতকোষ। এই মৃতকোষ কেরাটিন নামের এক প্রকার প্রোটিন দিয়ে তৈরি হয়। নখ দেখতে সাদা বর্ণের এবং পাতলা। নখ প্রতিদিন তৈরি হয়। প্রতি মাসে ১/৮ ইঞ্চি নখ বড় হয়। পায়ের নখ হাতের নখের তুলনায় ধীরে বড় হয়।

Anatomy of Nails
Anatomy of Nails


আমাদের দেহে নানা জৈবিক প্রক্রিয়ায় কেরাটিন নামের এই প্রোটিন তৈরি হয়। দেহের এসব কেরাটিন নানান রাসায়নিক প্রক্রিয়ায় এক সাথে হয়ে হাত বা পায়ের নখ হিসেব দেহের বাইরে বের হয়। নখের নিচের নরম ও সংবেদনশীল অংশকে রক্ষায় নখ সাহায্য করা ছাড়াও আরও বেশ কিঝু কাজ করে। এক হিসেবে দেখা গেছে, হাত-পায়ের নখ প্রতিবছর গড়ে দুই ইঞ্চি করে বৃদ্ধি পায়। অবশ্য মানুষের বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে নখের বৃদ্ধিও তুলনামুলকভাবে কমে যায়। আবার পায়ের নখের চেয়ে হাতের নখ দ্রুত বৃদ্ধি পায়।
নখ মৃতকোষ হওয়ার কারণে এখানে কোন স্নায়ু কোষ থাকে না। আসলে স্নায়ু কোষের মাধ্যমে আমরা দেহে ব্যথার অনুভূতি পাই। তাই নখ কাটলে আমরা কোন ব্যাথা অনুভব করি না। একই কারণে চুল কাটলেও আমরা কোন ব্যথা পাই না।
চিকিৎসা বিজ্ঞানে নখের বেশ গুরুত্ব রয়েছে। চিকিৎসকরা নখের অবস্থা দেখেই তার শরীরের রোগ সম্পর্কে আঁচ করতে পারেন। যেমন, যাদের নখ নীলচে রঙের তাদের সংবহনতন্ত্রে সমস্যা আছে। আবার যাদের নখ ভঙ্গুর তাদের দূর্বল সংবহনতন্ত্র অথবা পুষ্টিগত সমস্যা থাকে। আবার রক্ত, ধমনী, যকৃত বা ফুসফুসের নানা রোগের লক্ষণ নখে ফুটে ওঠে।
নখকে দশ ভাগে ভাগ করা যায়-
১. ম্যাট্রিক্স (Matrix): এটা একমাত্র জীবিত অংশ যা নখ ফোল্ড অংশের নিচে থাকে এবং কেরাটিন উৎপন্ন করে যা নখ প্লেট গঠনে মূল ভূমিকা রাখে।

২. ইপোনাইচিয়াম (Eponychium) : এটা নখকে ঘিরে থাকা চামড়ার মোটা স্তর, এটি ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া থেকে নখের অন্তর্গত অংশকে রক্ষা করে

৩. পেরোনাচিয়াম (Peronychium) : এটা ম্যাট্রক্স কে রক্ষাকারী জীবিত চামড়া যা কিউটিকল বা Eponychium অংশের চারপাশে থাকে

৪. হাইপোনাইচিয়াম (Hyponichium) : nail plate এবং nail bed এর মধ্যবর্তী সংযোগকারী অংশ যা মুক্ত কর্ন (free edge) এর নিচে অবস্থান করে

৫. নখ ফলক (nail plate) : শক্ত এবং আধাস্বচ্ছ অংশ যা কেরোটিনের স্তরের সমষ্টি।

৬. নখ বিছানা (nail bed) : এটা নখ ফলকের গোলাপি রংয়ের জন্য দায়ী, এটা নখ কিভাবে বেড়ে উঠবে তাও নির্ধারণ করে থাকে।

৭. লুনুলা (Lunula) : বড় ধরনের নখে এটা দেখা যায়, নখ ফলকের কাছাকাছি সাদা অর্ধ গোলাকার অংশ, ম্যাট্রিক্সের ছায়া।

৮. নখ ভাঁজ (Nail fold): শক্ত চামড়ার ভাঁজ যা নখের মূল (base) এবং পাশ ছেদ করে

৯. মুক্ত কর্ন (free edge) : নখ ফলকের পিছনে আংগুলকে ছাড়িয়ে বৃদ্ধি পাওয়া নখের অংশ।

১০. পরিখাত (Nail Groove) : নখ ভাঁজের পাশে অবস্থিত। নখ কোন দিকে বৃদ্ধি পাবে তা নির্ধারণ করে।

Post a Comment

 
Top